- Advertisement -

- Advertisement -

নাগেরপাড়া ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলতে চাই – মাস্টার বিল্লাল হোসাইন ৷ 

জনতার চেয়ারম্যান পর্ব - ০১। ইউপি নির্বাচন ২০২১

367



ইউনিয়ন  পরিষদ নির্বাচন ২০২১ – জনতার চেয়ারম্যান পর্ব – ০১

 

পৌরসভা নির্বাচনের পাঠ গুছিয়ে রোজা শেষে আগামী মে মাসে সারাদেশে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পরিকল্পনা করছে নির্বাচন কমিশন।
.
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বৃহস্পতিবার নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এক অনুষ্ঠানে একথা জানান।
পৌরসভা নির্বাচনে চতুর্থ ও পঞ্চম ধাপের ভোট রয়েছে ১৪ ফেব্রুয়ারি ও ২৮ ফেব্রুয়ারি। মার্চে হালনাগাদে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। এরপর রমজান রয়েছে।
সিইসি বলেন, “শেষ ধাপের বাদ বাকি পৌরসভা ও নির্বাচন উপযোগী কিছু ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ৭ এপ্রিল করার প্রস্তাব এসেছে। ১৭ ফেব্রুয়ারি কমিশন সভায় এ বিষয়টি চূড়ান্ত হবে। ক’টি পৌরসভা ও ইউপি ভোট করা যায়, তা পর্যালোচনা হবে এ সময়।”
দেশের প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউপি রয়েছে। পাঁচ বছর আগে ২০১৬ সালে ২২ মার্চ থেকে  জুন পযন্ত ছয় ধাপে চার হাজারের বেশি ইউপির ভোট হয় দলীয় প্রতীকে। এবারও দলীয় প্রতীকে ভোট হবে।
.
কবে নাগাদ বেশিরভাগ ইউপিতে ভোট হবে- জানতে চাইলে নূরুল হুদা বলেন, “ভোটার তালিকা চূড়ান্ত প্রকাশের বিষয়, সিডি তৈরি ও রমজান রয়েছে। ৭ এপ্রিল কিছু হবে। তবে ঈদের পরে মধ্য মে মাসে ইউপি নির্বাচন শুরু হবে।”
.
পাঁচ বছর আগে মার্চের শেষ সপ্তাহে ভোট শুরু করে জুনের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত ছয় ধাপে ভোট হয় ইউপির।
.
এদিকে ইউপি নির্বাচন কে কেন্দ্র করে দেশের আনাচে কানাচে চলছে নির্বাচনের সাঁজ সাঁজ রব,  গ্রাম্য চায়ের দোকান,  রাস্তার মোড়,  হাট বাজারে চলছে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২১ এর জন্য সম্ভাব্য পার্থীদের  দৌড়ঝাঁপ।  রাস্তার মোড়ে মোড়ে শোভা পাচ্ছে পার্থীদের আকর্ষণীয় ফেস্টুন,  বিলবোর্ড, পোস্টার । ভোটারদের দ্বারে দ্বারেও ঘুরছেন এসব পার্থীরা,  দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি।
.

আরো পড়ুন –

অনলাইনে ইনকাম ২০২১, ঘরে বসে আয় করার সহজ উপায়

 

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২১ কে সামনে রেখে দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল “শীর্ষবার্তা ডটকম” চালু করেছে “জনতার চেয়ারম্যান” নামের ধারাবাহিক সাক্ষাৎকার পর্ব। যেখানে দেশের বিভিন্ন জেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য   চেয়ারম্যান পদপার্থীদের জনতার মুখমুখি করা হবে। জনতার পক্ষে থেকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হবে পার্থীদের।

.
জনতার চেয়ারম্যান” এর আজকের পর্বে আমরা মুখমুখি হয়েছি শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট থানার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাস্টার মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনের
.
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ কেমন আছেন?
.
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ আলহামদুলিল্লাহ। ভালো। আপনি কেমন আছেন?
.
মাস্টার মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ আলহামদুলিল্লাহ আমিও ভালো আছি ৷ আপনার পারিবারিক স্টাটাস সম্পর্কে জানতে চাই ৷
.
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ সাধারণ পরিবারে জন্ম আমার। বাবা- মোহাম্মদ শামছুল হক (সাকিম আলী) মাঝি, মা – মোসাম্মাৎ উম্মে কুলসুম। বাবা-মা দুজনই ইন্তেকাল করেছেন।(ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।) বাবা পেশায় কৃষক, ব্যবসায় ও করতেন, মা গৃহিনী ছিলেন। আমার স্ত্রী গৃহিণী। আমাদের ঘরে এক ছেলে আবরারুল হক সাবের বয়স প্রায় ২ বছর ৬ মাস। চার ভাই তিন বোন। বড় ভাইয়ের চার ছেলেমেয়ে। বড় ছেলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ৷ মেজো ছেলে কৃষি ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার। ছোট ছেলে শরীয়তপুর সরকারি কলেজ থেকে মাস্টার্স কমপ্লিট করে নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সহযোগিতা করছে।
.
মেয়ে সরকারি শামসুর রহমান কলেজে অনার্স করছে। মেজ ভাইয়ের  বড় ছেলে ঢাকা ইউনিভার্সিটি থেকে মাস্টার্স কমপ্লিট করেছে। মেয়ে গোসাইরহাট সফুরা খাতুন মহিলা কলেজে অধ্যায়নরতা। সেজ ভাইয়ের  বড় ছেলে দশম শ্রেণীতে, ছোট ছেলে মাদ্রাসায় প্রথম শ্রেণীতে। আমি নাগেরপাড়া বহুমুখী উচ্চ  বিদ্যালয়ে শিক্ষক পদে 2004 সাল থেকে কর্মরত আছি। বোনদের বিয়ে হয়ে গেছে ৷
.
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ আপনার শিক্ষাজীবন নিয়ে বলুন ৷
.
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ শিক্ষাজীবন নাগেরপাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে  ১৯৯৪ সালে এসএসসি পাস করেছি। স্টারমার্কস প্রাপ্ত 7 জনের একজন ছিলাম। আলহামদুলিল্লাহ ৷ এইচএসসি সরকারী শামসুর রহমান কলেজ থেকে প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ।
.
সরকারি বি এল কলেজ খুলনা থেকে স্নাতক পাস করে 2004 সালে নাগেরপাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক( বাংলা) পদে  নিয়োগপ্রাপ্ত হই।
শিক্ষকতা পেশায় বিএড সম্পন্ন করেছি। শরীয়তপুর জেলার বাংলা বিষয়ের মাস্টার ট্রেইনারদের একজন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি।
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ সমাজকল্যাণমূলক কাজে আপনার অবদান কী?
.
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ সমাজকল্যাণমূলক কাজে অগ্রগতির লক্ষ্যে আনন্দবাজার ইসলামিয়া কওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সম্পৃক্ত। 2014 সাল থেকে সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করছি। পাশাপাশি আনন্দবাজার জামে মসজিদের সেক্রেটারি দায়িত্ব 2005 সাল থেকে পালন করে আসছি।
.
শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে বড় ভাই, বন্ধু মহল ও ছোট ভাইদের সাথে 2008 সালে নাগেরপাড়ার প্রাণকেন্দ্রে নাগেরপাড়া কিন্ডারগার্টেন নামে একটা স্কুল প্রতিষ্ঠা করি। প্রতিষ্ঠাতা 21 জনের একটা অ্যাসোসিয়েশন রয়েছে যার নাম মিতা (মিউচুয়াল ইনভেস্টমেন্ট ট্রাস্ট ফর অ্যাসোসিয়েশন) প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করেছি। বর্তমানে অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছি। নাগেরপাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের শিক্ষকদের ভোটে নির্বাচিত শিক্ষক প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি ৷
.
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ নাগেরপাড়া ইউনিয়ন নিয়ে আপনার স্বপ্ন কী?
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ
নাগেরপাড়া ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলাই আমার স্বপ্ন ৷
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ জনগণ আপনাকে কেনো নির্বাচিত করবে?
.
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ
আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাই সালাম এর আদর্শ ধারণ করি, লালন করি, বাস্তবায়নের চেষ্টা করি। আর যে আদর্শ সমাজে বাস্তবায়িত হলে সকল ধর্ম-বর্ণের, সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের জান-মাল ইজ্জত-আবরু নিরাপদে থাকবে। সে আদর্শ বাস্তবায়নের জন্যে আমি মনে করি জনগণ আমাকে নির্বাচিত করবেন।
শীর্ষবার্তা ডটকমঃআপনার নির্বাচনী ইশতেহার কী?
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ
নির্বাচনী ইশতেহার  লিখিত আকারে পরবর্তীতে তুলে ধরা হবে ইনশাল্লাহ।
.
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ অন্যান্য প্রার্থীদের থেকে আপনার স্বাতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্য কী?
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ
আমরা যারা চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি আমরা নাগেরপাড়া ইউনিয়নের সন্তান। আমাদের জীবন জীবিকা সবই মানুষ জানেন।  আমরা যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি আমাদের সকলের জীবনমান পর্যালোচনাপূর্বক আলাদা কোনো বৈশিষ্ট্য থাকলে সেটা জনগণই খুঁজে বের করবেন ইনশাআল্লাহ।
.
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ নাগেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদর নামকরণ ও ঐতিহ্য সম্পর্কে বলুন ৷
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ
নাগেরপাড়া ইউনিয়নের নামকরণ সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায় না ৷ অনেকে এরকম ধারণা করেন যে এখানে নাগ সম্প্রদায়ের বসবাস ছিল হয়তো এ থেকে নাগেরপাড়া হয়েছে। আবার কেউ বলেছেন  নাগ অর্থাৎ সাপ পূজারীরা এখানে প্রাধান্য বিস্তার করেছিল সেই থেকে নাগেরপাড়া হয়েছে ৷
আবার কেউ কেউ বলছেন যে এই অঞ্চলটি বন জঙ্গলে ঘেরা ছিল সেখানে সাপের উপদ্রব ছিল সে থেকে নাগেরপাড়া হয়েছে। নামকরণের ক্ষেত্রে সঠিক কোনো তথ্য জানা যায় না।
নাগেরপাড়া ইউনিয়ন ঐতিহাসিকভাবে স্বীকৃত ইউনিয়ন। এখান থেকে ফরাজি আন্দোলনের পুরোধা হাজী শরীয়তুল্লাহ (রহঃ)এর বংশধর হাজী মাওলানা বাদশা মিয়াকে (রহঃ) স্বদেশী  আন্দোলনের জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছিলেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দিক থেকেও নাগেরপাড়া পিছিয়ে নেই।
এখানে দুটি ফাজিল( ডিগ্রি) মাদ্রাসা রয়েছে ৷ রয়েছে উচ্চ বিদ্যালয়,দাখিল মাদ্রাসা,  আছে 24 টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাথে রয়েছে  কওমি মাদ্রাসা, নূরানী মাদ্রাসা ও হিফজ মাদ্রাসা। অন্যান্য ক্ষেত্রেও  নাগেরপাড়া অনন্য উচ্চতায় রয়েছে। শিক্ষা, চিকিৎসা, কৃষি ক্ষেত্রেও অগ্রসরমান।
নাগেরপাড়ার  সন্তানরা যেমন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ রয়েছেন, রয়েছেন শিল্পপতি, ধনাঢ্য ব্যক্তিবর্গ, আছেন চিকিৎসক, সরকারি উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা  সব মিলিয়ে এক উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় জনপদ  নাগেরপাড়া ইউনিয়ন।
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ নির্বাচনের চিন্তা মাথায় এলো কেনো?
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ
“সৎ কাজের আদেশ অসৎ কাজের নিষেধ ” মহাগ্রন্থ আল-কুরআনের ঐশী বাণীর আলোকে পীরসাহেব চরমোনাই হুজুরের নির্দেশ  আমাকে নির্বাচনে আসতে উদ্বুদ্ধ করেছে।
শীর্ষবার্তা ডটকমঃ সময় দেয়ার জন্য ধন্যবাদ ৷
মুহাম্মাদ বিল্লাল হোসাইনঃ আপনাকেও ধন্যবাদ ৷

 

 

- Advertisement -

সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন সাংবাদিক দীদার মাহদী।
বিঃদ্রঃ জনতার চেয়ারম্যান এ আপনার এলাকার কোন চেয়ারম্যান পার্থীকে মুখমুখি করতে চাইলে আমাদের কে ইমেইল করুন।   
ইমেইল  ঠিকানা shershabartafb@gmail.com