করোনা বিনোদনে বাংলাদেশ, মাথা ন্যাড়ার হিড়িক

0 154

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
বাংলাদেশ অপার সম্ভাবনাময় এক দেশ ৷ কিন্তু মাঝেমধ্যে গুজবের কারণে থমকে দাঁড়াচ্ছে এর গতি ৷ দেশে করোনা সংক্রমণের পর এর প্রতিষেধকের নানা গুজব রটে আসছে ৷ কোথাও রাত জেগে থানকুনি পাতা খাওয়া হচ্ছে ৷ কোন পীর সাহেব নাকি স্বপ্নে দেখেছে এটা ৷ মাইকে ঘোষণা দিয়ে চলেছে থানকুনি ডোস ৷ আবার কোথাও পানি পড়া, কোথাও আবার তুলসি পাতা খাওয়ার হিড়িক দেখছে বাংলাদেশ ।
দেশে দীর্ঘদিন যাবত লকডাউন চলছে ৷ একঘেয়েমি রোধে এবং সেলুন বন্ধ থাকায় কেউ কেউ ন্যাড়া হয়েছেন ৷ এর ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে মজাও করছেন অনেকে ৷ কিন্তু এই মাথা ন্যাড়া নিয়েও শুরু হয়েছে গুজব ৷ দেশের বিভিন্ন জায়গায়  করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে এবার মাথা ন্যাড়া শুরু হয়েছে ।
এরই মধ্যে শ’ শ’ যুবক মাথা ন্যাড়া করেছেন। সেই ন্যাড়া মাথার দলগত ছবি পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও।

বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার সব বয়সের মানুষের মাঝে মাথা ন্যাড়া করার হিড়িক লক্ষ্য করা গেছে। করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে মাথা ন্যাড়া করার দৃশ্যে মানুষের মধ্যে কৌতূহলের সৃষ্টি হয়েছে ।তবে করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে মাথা ন্যাড়া করার এই বিষয়টি হাস্যকর বলছেন চিকিৎসকরা।

করোনা সংক্রমণ রোধে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়। একইসঙ্গে অবস্থান করতে বলা হয় বাসা-বাড়িতে। মাথা ন্যাড়া করে নিজেকে ঘরে রাখতেই এ ব্যবস্থা বলেও জানিয়েছেন অনেকেই।  

 তারা বলেন,  করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এখন সবাইকে বাসা-বাড়িতে থাকতে হচ্ছে। কতদিন পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বা স্বাভাবিক কর্মজীবনে ফিরবেন তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। এই সুযোগে মাথা ন্যাড়া করে নিচ্ছেন তারা। আবার অনেকেই জানিয়েছেন, সরকারি নির্দেশনায় এখন অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো সেলুনগুলোও বন্ধ রয়েছে। দীর্ঘদিন সেলুনে যেতে না পারায় মাথায় চুল বড় হয়ে যাচ্ছে। গরমের এই সময়ে চুল বেড়ে গিয়ে মাথা চুলকাচ্ছে। তাই বাড়িতে বসেই মাথা ন্যাড়া করে ফেলছেন।

দীমা

- Advertisement -

error: Content is protected !!