কে এই মাওলানা শরিফ আহমাদ ?

20

মাওলানা শরিফ আহমাদ

আপনারা বিভিন্ন সময় গুগলে সার্চ করেন ।  বিভিন্ন বিষয়ে কন্টেন্ট পড়েন । অনেক বিষয়ে সবার আগে আমাদের সাইট খুঁজে পান। এবং নির্ধারিত বিষয়ে চমৎকার সব তথ্যবহুল লেখা পেয়ে থাকেন। কিন্তু কে লিখে থাকে এমন সুন্দর সুন্দর লেখা ?  আজকে আমরা কথা বলবো সেই গুণী  মানুষটিকে নিয়ে । যিনি প্রতিনিয়ত আপনাদের সামনে উপস্থাপন করছেন তথ্য সমৃদ্ধ অর্টিকেল । দূর করে দিচ্ছেন সংশয় । খুলে দিচ্ছেন সমাধানের সঠিক পথ ।

- Advertisement -

 হ্যাঁ বলছি মাওলানা শরিফ আহমাদ এর কথা। চলুন শুরু করি সময়ের জনপ্রিয় এই লেখকের জীবন গাথা নিয়ে সংক্ষিপ্ত কিছু আলোচনা।

মাওলানা শরিফ আহমাদ এর জন্ম

কে এই মাওলানা শরিফ আহমাদ

 

মাওলানা শরিফ আহমাদ ১৯৯৪ সালের ২৫ জুন নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার উত্তর ভেড়ভেড়ী গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন । তার পিতার নাম আব্দুল লতিফ এবং মাতার নাম রাবেয়া বেগম । পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট ।

লেখালেখিতে মাওলানা শরিফ আহমাদ 

নিজ গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠ চুকিয়ে তিনি ঢাকায় চলে আসেন । মাদ্রাসায় লেখাপড়ার পাশাপাশি লেখালেখি শুরু করেন । কলি পরিষদের সংস্পর্শে এসে লেখালেখির অগ্রগতি হয় । বিশেষ করে কবি মহিউদ্দিন আকবর, মুফতি আহসান শরিফ, মুফতি শফিক সাদী, মুফতি ফারহান বিল্লাহ , হাফেজ মাওলানা দীদার মাহদী ও ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা টুটুল সাহেবদের কল্যাণে এগিয়ে যান দ্রুত । লিখতে থাকেন সাপ্তাহিক, মাসিক, বাৎসরিক এবং বিভিন্ন দৈনিক পত্র-পত্রিকায় ।

 

অমর একুশে গ্রন্থমেলা উপলক্ষে প্রকাশিত হয় তার প্রথম গ্রন্থ । এ পর্যন্ত তার লেখা গ্রন্থের সংখ্যা তিনটি । রয়েছে সম্পাদিত গ্রন্থ । অনেক পান্ডুলিপি রেডি আছে । আর কিছু আছে প্রকাশের অপেক্ষায় । সাহিত্যের প্রায় সব শাখায় তার বিচরণ রয়েছে । তবে কোরআন-হাদীস কেন্দ্রিক বিষয় ভিত্তিক কন্টেন্ট চমৎকারভাবে উঠে আসে তার কলমে । প্রকাশিত হয় বিভিন্ন ওয়েবসাইটে । তিনি শিশু-কিশোরদের জন্য ছড়া-কবিতার পাশাপাশি ইসলামী গান রচনা করেন । ইতিমধ্যে তার লেখা অনেক গানের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে । শিল্পীরা পেয়েছে পরিচিতি । সর্বত্র কুড়িয়েছে সুনাম ।

কে এই মাওলানা শরিফ আহমাদ ?

তরুণ এই লেখক লেখালেখির জন্য ইতোমধ্যে কলিপরিষদ বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরাম ,মানব ফাউন্ডেশন, ক্যারিয়ার বাংলাদেশসহ বিভিন্ন সংগঠন থেকে পুরস্কার ও সনদ লাভ করেন ।

 

সাহিত্য-সাংবাদিকতা ও আবৃত্তিচর্চার পাশাপাশি তিনি পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান জামিয়া ইসলামিয়া ইসলামবাগ থেকে বেফাকের অধীনে ২০১৫ ইং সালে দাওরায়ে হাদীস (মাস্টার্স) সম্পন্ন করেন ‌।‌ বর্তমানে তিনি মাদ্রাসায় শিক্ষকতার পাশাপাশি মসজিদের খতীবের দায়িত্বে আছেন ।

 

শেষকথাঃ

আমরা মাওলানা শরিফ আহমাদ সমন্ধে মোটামুটি বেশ কিছু তথ্য আপনাদের জানালাম। মাওলানা শরিফ সম্পর্কে আরো কিছু জানতে, এবং মাওলানা সাহেবকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করতে চাইলে করতে পারেন। আমাদের মাওলানা শরিফ আহমাদ সর্বাবস্থায় প্রস্তুত আপনাদের বিভিন্ন প্রশ্নের যৌক্তিক ও দালিলিক  জবাব দিতে। ইনশাআল্লাহ ।

সর্বশেষে মাওলানা সাহেবের সুস্থতা, লেখালেখির ময়দানে থাকা এবং দীর্ঘায়ুর জন্য আপনাদের সবার কাছে দোয়া চেয়ে শেষ করছি আজকের লেখা। সবাই ভালো থাকুন । সুস্থ থাকুন । আমাদের সাথেই থাকুন । আল্লাহ হাফেজ। 

 

 

- Advertisement -