- Advertisement -

- Advertisement -

মহিলাদের জন্য মসজিদের দুয়ার অবারিত হোক

61

- Advertisement -



মেয়েরা কি কেনাকাটা করতে বাজারে যেতে পারবে? অসুস্থ হলে হাসপাতালে যেতে পারবে? কাজের প্রয়োজনে বাইরে যেতে পারবে? সবগুলো প্রশ্নের উত্তর: হ্যাঁ, পর্দা সহকারে মেয়েরা এই সবগুলো জায়গায় যেতে পারবে। ইসলাম তাদেরকে প্রয়োজনে বাইরে যেতে বারণ করে না।

মজার ব্যাপার হলো, প্রয়োজনে যারা মহিলাদেরকে বাইরে যাওয়ার ফতোয়া দেন, তাদের অনেকেও ফিতনার দোহাই দিয়ে মহিলাদেরকে মসজিদে যেতে বারণ করেন। কথা হলো, বাইরে যাওয়ার অনুমতি থাকলে মসজিদে যাওয়ার অনুমতি নেই কেন? এইসব জায়গার চেয়ে মসজিদে কি ফিতনা বেশি?

- Advertisement -

বুঝলাম, মসজিদের চেয়ে ঘরে নামায পড়া মহিলাদের জন্য উত্তম। তাই বলে তারা যখন প্রয়োজনে বাইরে যাবে, তখন যদি নামাযের সময় হয়ে যায়, তখনও কি মসজিদে যেতে পারবে না? বাইরে — বাজার, হাসপাতাল, রাস্তাঘাট — এর চেয়ে কি মসজিদ অনুত্তম স্থান? আমি বলছি না, মহল্লার মসজিদে আযান দিলে মহিলারা নিজের ঘর থেকে বের হয়ে মসজিদে গিয়ে নামায পড়ুক। আমি বলছি, আগে থেকেই যে মহিলা বাইরে আছে, ঘরে ফিরতে ফিরতে যার নামাযের সময় চলে যাবে— সেও কি মসজিদে যেতে পারবে না? মহিলা তো বাইরেই আছে, বিবিধ দুনিয়াবি ফিতনার মধ্যে— এই সময়ও কি বাজার, রাস্তাঘাট ও হাসপাতাল মহিলাদের জন্য মসজিদের চেয়ে উত্তম বিবেচিত হবে?

ধরুন, আপনি আপনার স্ত্রীসহ কোথাও গেলেন। এই মুহূর্তে নামাযের সময় হয়ে গেল। আপনার তো মুসলিম হিসেবে নামায পড়তে হবে। আপনি মসজিদে যেতে চাইলে আপনার স্ত্রীকে কোথায় রেখে যাবেন? যে কোনো একটি দোকান বা রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়ে রাখতে পারেন (অনেকে যা করে)। দোকান বা রাস্তার পাশের চেয়ে মসজিদ কি বেশি অনিরাপদ ও অনুত্তম? নামায তো আপনার স্ত্রীকেও পড়তে হবে। ধরলাম, ফতোয়ার শিকার হয়ে আপনার স্ত্রী সেই ওয়াক্ত নামায কাযা করবেন। কাযা করতে চাইলেও তো তাকে আপনার মসজিদে অবস্থানকালটুকু নিরাপদে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হবে। দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে চাইলেও তো মসজিদ উত্তম স্থান হওয়া উচিত। আমাদের মসজিদগুলোতে কি অন্তত মহিলাদের জন্য অপেক্ষা করার জায়গাটুকু আছে?

বলতে পারেন, মহিলাদের বাইরে যাওয়ারই অনুমতি নেই। মরে গেলেও নেই। তারপরও যদি যায়? অহেতুক ও অপ্রয়োজনেই গেল। সেই সময় যদি নামাযের সময় হয়ে যায়, সে কী করবে? ডাকাতি করতে যদি কেউ সফরে যায় এবং এহেন অপরাধ সংঘটন করতে গিয়েও যদি কেউ নামায পড়তে চায়, তাহলে কসর পড়বে নাকি পূর্ণ নামায পড়বে— এই মাসআলাও ফিকহের কিতাবে আছে। এরকম ব্যাপারই ধরুন। উচিত নয় তবু কোনো মহিলা বাইরে গেল, এই সময় সে নামায পড়তে চাইলে কী করবে? আমি জানি, অনেকেই ইতিবাচক উত্তর দেবেন। আমি এও জানি, যারা ইতিবাচক উত্তর দেবেন, তাদের মসজিদেও মহিলাদের নামায পড়ার ব্যবস্থা নেই।

আবুল কাসেম আদিল