লেখালেখির গুরুত্ব ও ইনকাম প্রসঙ্গ| শরিফ আহমাদ | শীর্ষবার্তা ডটকম

0 148


— শরিফ আহমাদ |

পবিত্র কুরআনুল কারীমে ইরশাদ হয়েছে, নুন ও কলমের শপথ এবং ওই বস্তুর শপথ, যা তারা লিপিবদ্ধ করে। (সূরা কলম : ১)আল্লাহ রাব্বুল আলামীন কলমের শপথ করেছেন ৷ বেড়ে গেছে কলমের গুরুত্ব ৷ কেননা শপথ সাধারণত ওই বস্তুর নামে হয়ে থাকে, যা সম্মানিত বা গুরুত্বপূর্ণ হয়। আর কলম আসলেই একটি গুরুত্বপূর্ণ বস্তু ৷
কলমের ছোঁয়ায় হয় লেখালেখি ৷ রচিত হয় অসাধারণ সব আর্ট ৷ মুগ্ধকরা বিশ্বজয়ী শিল্প ৷
ইতিহাসগ্রন্থ প্রমাণ করেছে লেখালেখির প্রথা প্রাচীনকাল থেকে চলে আসছে। স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা সর্বপ্রথম লেখার প্রথা প্রবর্তন করেন। তিনি এ পার্থিব জগৎকে সৃষ্টি করার ৫০ হাজার বছর আগেই সমগ্র সৃষ্টিজীবের ‘ভাগ্য’ লিখেছিলেন।
হযরত জায়েদ ইবনে সাবেত রা: বর্ণিত ৷ তিনি বলেন, একদা আমি প্রিয়নবী সা:-এর কাছে গেলাম এমন সময় তার সম্মুখে একজন কাতেব ছিল। তিনি (কাতেবকে লক্ষ্য করে) বললেন ‘কলমটি তোমার কানের ওপর রাখো। কেননা এতে প্রয়োজনীয় কথা বেশ স্মরণে আসে।

বাস্তবিকই যুগে যুগে জ্ঞান-বিজ্ঞানের ব্যাপক প্রচার-প্রসার, জ্ঞানের উত্তরাধিকার সৃষ্টি ও সংরক্ষণের মাধ্যম হিসাবে লেখালেখির গুরুত্ব অপরিসীম ৷ সামর্থ্য থাকা সত্ত্বেও যারা লেখে না, ইসলাম মনে করে সে নিজের এবং অন্যের অধিকার নষ্ট করেছে। নিজের অধিকার নষ্টের অর্থ হলো নিজেকে ফলপ্রসূ হওয়া থেকে বঞ্চিত করা, উত্তম কাজগুলো থেকে মুখ ফিরিয়ে রাখা। ইসলাম সম্পর্কে মানুষকে জানতে না দেয়া। আর অন্যের অধিকার খর্ব করার মানে হচ্ছে সাধারণ মানুষ তার দিকনির্দেশনা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। ফলে পথহারা অনেক মানুষ সত্য সঠিক পথে পরিচালিত হতে পারেনি।
একটি লেখা শুধু সমকালীন মানুষকেই লাভবান করে না, বরং ওই লেখা শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে আদর্শ সমাজ গঠনে আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করে। বিষয়টি গভীরভাবে উপলব্ধি করে পূর্ববতী আলেম-ওলামাগণ লিখে গেছেন ৷ রেখে গেছেন কিতাবের পাহাড় ৷ ইলমের মহাসমুদ্র ৷ অল্পকিছু আলেম বর্তমানেও লিখছেন ৷ ভালো কাজ করছেন ৷ আরো অনেক প্রয়োজন ৷ তাই আজ অন্যান্যদের এগিয়ে এসে লেখালেখির মাধ্যমে বিশ্বময় ইসলামের দাওয়াতী কাজ ছড়িয়ে দেয়া জরুরি ৷ বিশেষ করে অনলাইনে কুরআন সুন্নাহ ভিত্তিক সঠিক তথ্য তুলে ধরা সময়ের দাবি ৷

হযরত ওলামা-মাশায়েখের পাশাপাশি শিক্ষিত ও সচেতন মুসলমানগণের নানামুখী উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন ৷ বিশেষ করে ভালো লিখিয়েগণ অফলাইনের মতো অনলাইনে লিখে ইনকাম করতে পারেন ৷
অফলাইনে যেমন বিভিন্ন পত্রিকায় ফিচার-কলাম লিখে, সাংবাদিকতার মাধ্যমে,ভালো বই প্রকাশ করে, বিভিন্ন প্রকাশনীতে সম্পাদক, প্রুফ রিডার হিসাবেও ইনকাম করা যায় ৷ তেমনি
অনলাইনেও নিউজ পোর্টালে লিখে আয় করতে পারেন! অনেক অনলাইন পোর্টাল মাসিক বেতন দিয়ে নিউজ রাইটার হায়ার করে।
ইচ্ছে করলে নিজেও একটা নিউজ পোর্টাল বা নিশ ব্লগ খুলে কাজ করা যায় !
চাইলে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কন্টেন্ট লিখে দেশি-বিদেশি অনেক সাইট থেকেও ইনকাম করা যায় ৷ বিষয়ভিত্তিক অসাধারণ কিছু কন্টেন্ট লিখতে নিম্নের পরামর্শগুলো কাজে লাগাতে পারেন—
● বিভিন্ন ভালো কনটেন্ট পড়ে একটি সামগ্রিক ধারণা তৈরি করা
● অন্যের কনটেন্ট কপি-পেস্ট না করে স্বতন্ত্র কনটেন্ট তৈরি করা
● বানান, ব্যাকরণ ও বাক্যের গঠনের দিকে খেয়াল রাখা
● নিশ্চিত না হয়ে অনুমানের ভিত্তিতে কোনো তথ্য না দেওয়া
● নির্দিষ্ট কোনো তথ্য প্রদানের ক্ষেত্রে তথ্যসূত্র উল্লেখ করা
● অনেক বড় প্যারাগ্রাফ না লিখে একেকটি বিষয়ের জন্য একেকটি ছোট প্যারাগ্রাফ তৈরি করা
● নিয়মিত চর্চা অব্যাহত রাখা ৷

লেখকঃ আলেম, কবি ও আলোচক ৷

- Advertisement -